সারাদেশ

আবারও ডা: তৌহিদুল ইসলামের ভুল চিকিৎসার বলি হলেন ৬ মাসের শিশু

  প্রতিনিধি ৫ আগস্ট ২০২৩ , ৪:৩৩:৪০ প্রিন্ট সংস্করণ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সম্প্রতি শেবাচিম হাসপাতালে গলার অপারেশনের জায়গায় তলপেটে অপারেশন করে একটি শিশুর প্রায় পঙ্গুত্ব বরণের শঙ্কা কাটতে না কাটতেই আবারো আলোচনা সেই শিশু সার্জন ডা. তৌহিদুল ইসলাম। বরিশাল বান্দরোডের রাহাত আনোয়ার হসপিটালে ওটির টেবিলে একটি (৬ মাস) বয়সী শিশুর মৃত্যু হয়। আজ মঙ্গলবার (১আগষ্ট) বিকালে ডাঃ তৌহিদুল ইসলাম এর ভুল অপারেশন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ স্বজনদের।

পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার, ডাকুয়া ইউনিয়ন ৩নং ছোটো চতরা গ্রামের বাসিন্দা মোঃ ফিরোজ খানের সন্তান তানজিম ইসলাম (৬ মাস) মাতাঃ শিরিনা বেগম।

নিহতর মামা রাকিব হোসেন বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৯:৩০মিনিট সময় বান্দ রোড রাহাত আনোয়ার হসপিটালে ভর্তি হয়। দুপুরে তিনটার সময় অপারেশন থিয়েটারে চিকিৎসা করার জন্য ভিতরে প্রবেশ করেন। অপারেশনের কিছুক্ষণ আগে আমি ভিতরে প্রবেশ করি।আমি দেখতে পাই আমার ভাগিনার মুখের অক্সিজেন মাস্ক লাগানো।
কিন্তু ভাগিনা কাইত হওয়ায় তার মুখ থেকে অক্সিজেনের মাস্কটি খুলে য়ায়। ডাক্তারের কাছে বার বার বলি মাক্সটি মুখে দিতে। ডাক্তার মাক্সটি মুখে দিয়ে দেয়। কিন্তু অক্সিজেনের মাক্সটি মুখে দিলেও কোনো শাস নিচ্ছে না। বিষয়টি দেখে আমার সন্দেহ হলে আমি ৯৯৯ নাম্বারে কল দিয়ে পুলিশের সহযোগিতা চাই। ঘটনা স্থালে পুলিশ প্রশাসন আসছে তাদের সাথে কথা বলে আমরা কোতয়ালী থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এবিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন (পুলিশ কমিশনার) মোঃ সাইফুল ইসলাম, বিপিএম(বার) বলেন,বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। আপনাদের কাছ থেকে বিষয়টি শুনছি। যদি এধরণের কোনো ঘটনা ঘটে তাহলে ভুক্তভোগী অভিযোগ দিলে, ডাক্তারের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বরিশাল সিভিল সার্জন ডাঃ মারিয়া হাসান বলেন, এধরণের কোনো ঘটনা আমার জানা নেই। যদি ভুক্তভোগী লিখিত অভিযোগ দেয়। তাহলে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী  তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, সরকারি ৯৯৯ নাম্বারের মাধ্যমে বিষয়টি শুনে ঘটনা পরিদর্শন করেন। এসময় রোগীর স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেন। বিষয়টি আমার উর্দ্ধতম কর্মকর্তার সাথে কথা বলছি। নিহতের স্বজনরা অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর

Sponsered content