সারাদেশ

প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় ধরা খেয়ে পলাতক প্রেমিক, বাড়িতে হাজির আরেক প্রেমিকা

  প্রতিনিধি ১৫ মে ২০২৩ , ১:২২:৩৯ প্রিন্ট সংস্করণ

সালথা-নগরকান্দা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের নগরকান্দায় প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় ধরা খেয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে মো. জনি গোবাইজার (২১) নামে এক যুবক। তিনি পলাতক থাকা অবস্থায় বিয়ের দাবিতে তার বাড়িতে হাজির হয়েছেন আরেক প্রেমিকা(১৯)।

ওই তরুণীর দাবি, জনির সঙ্গে তার অনেকদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। জনি তাকে বিয়ে করার জন্য তাদের বাড়িতে আসতে বলেছেন। এরই সূত্র ধরে ওই তরুণী শুক্রবার বিকালে জনির বাড়িতে আসেন এবং বিয়ের দাবিতে সেখানেই অবস্থান করছেন।

জনি উপজেলার ডাঙ্গী ইউনিয়নের আটাইল গ্রামের মো. বাচ্চু গোবাইজারের ছেলে। 

তরুণী অভিযোগ করে বলেন, আমার বাবা নেই। আমরা তিন বোন দুই ভাইয়ের মধ্যে আমি সবার ছোট। ২০২০ সালে তালমা নাজিমুদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেছি। জনির সঙ্গে আমার দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছে। তিনি বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আমাকে তাদের বাড়িতে আসতে বলেছেন। তাই আমি এখানে এসেছি। কিন্তু জনি এখন কোথায় আছে বলতে পারছি না। হয়তো তার পরিবারের লোকজন তাকে ভয় দেখিয়ে কোথাও লুকিয়ে রেখেছেন। আমি জনিকে বিয়ে করে সারা জীবন এই বাড়িতেই থাকতে চাই।

এদিকে ওই তরুণী জনির বাড়িতে অবস্থান নেওয়ার পর থেকে তার বাবা বাচ্চু গোবাইজারও পালিয়েছেন। যেকারণে জনি ও তার বাবার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে জনির পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, জনির সঙ্গে তরুণীর সম্পর্কের বিষয় তারা কিছুই জানেন না। হঠাৎ করে মেয়েটি তাদের বাড়িতে এসে অবস্থান শুরু করেছে। জনিও বাড়িতে নেই। এমন অবস্থায় তারা চরম বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছেন।

অপরদিকে জনির প্রতিবেশীরা জানান, জনির চারিত্রিক সমস্যা রয়েছে। বখাটে এই ছেলেটি একাধিক নারীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িত। জনি এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় ধরা খেয়ে কয়েকদিন আগে পালিয়েছে। এরপর থেকে তার আর কোনো খোঁজ নেই। এই খবর জানতে পেরে জনির আরেক প্রেমিকা বিয়ের দাবিতে তার বাড়িতে অবস্থান করছেন।

ডাঙ্গী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী আবুল কালাম বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে পুরো ঘটনা আমি জানি না। খোঁজ-খবর নিয়ে বলতে পারব

আরও খবর

Sponsered content