সারাদেশ

প্রেমের সম্পর্কে একাধিকবার ধর্ষন, বিয়ের চাপ দেওয়ায় তরুণীকে হত্যা

  প্রতিনিধি ৩০ এপ্রিল ২০২৩ , ১১:৪৩:০০ প্রিন্ট সংস্করণ

ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ

প্রেমের সম্পর্কে একাধিকবার ধর্ষন। বিয়ের চাপ দেওয়ায় ধর্ষন শেষে নিজ ফুফাতো বোনকে হত্যা। ঝালকাঠির নলছিটিতে স্মৃতি আক্তার (৩৫) নামে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত বাপ্পি সরদার তুষারকে (২৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার(৩০ এপ্রিল) পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তায় নলছিটি চায়না মাঠ সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। দুপুরে ঝালকাঠি পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। হত্যার মূল হোতা বাপ্পি সরদার তুষার নিহত স্মৃতির আপন মামাতো ভাই। সে পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী। বাপ্পি উপজেলার কামদেবপুর গ্রামের ফেরদৌস সরদারের ছেলে।

পুলিশ সুপার মো. আফরুজুল হক টুটুল জানান,নিহত স্মৃতি আক্তারের সঙ্গে তাঁর আপন মামাতো ভাই বাপ্পি সরদার তুষারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বাপ্পি একাধিকবার স্মৃতিকে ধর্ষণ করে। এ অবস্থায় বাপ্পিকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিল স্মৃতি আক্তার । গত ২৫ এপ্রিল রাতে ঘরের দরজা খুলে স্মৃতিকে পাশের একটি ফসলের মাঠে নিয়ে বাপ্পি তাকে ধর্ষণ করে। এসময় তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করার পরে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। তাঁর লাশ ফসলের মাঠে ফেলে পালিয়ে যায় বাপ্পি সরদার।

পরের দিন দুপুরে বাড়ীর পাশে ফসলের মাঠ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে নিহতের মামাতো ভাই বাপ্পি সরদারকে গ্রেপ্তার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে একাই ধর্ষণ শেষে স্মৃতিকে হত্যার কথা স্বীকার করে।

পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, যেহেতু এই মামলায় একমাত্র হত্যাকারীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। সুতরাং আর কাউকে এ মামলায় আসামি করা হবে না। সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মঈনুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শংকর দাস ও নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আতাউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর

Sponsered content

WP Twitter Auto Publish Powered By : XYZScripts.com