লাইফ স্টাইল

ভালো মা-বাবা হতে সবাই চায়, তা হলে সন্তানকে যা শেখাবেন

  প্রতিনিধি ২৭ এপ্রিল ২০২৩ , ১১:৫৭:৫০ প্রিন্ট সংস্করণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

ভালো মা-বাবা সবাই হতে চান। সন্তানের পড়াশোনা থেকে শুরু করে তাকে একজন ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব মা-বাবারই। শুধু তাই নয়, সন্তানের সঙ্গে তাদের সুস্থ আর মজবুত বন্ধনও সৃষ্টি করতে হয়। 
 
একটি শিশুকে ভালো গুণাবলীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া, তার চাহিদা মেটানো, তাকে দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা- সবকিছুর জন্য কঠোর পরিশ্রম করেন মা-বাবা। এজন্যই তাদের শিশুর প্রথম শিক্ষক বলা হয়। শিশুকে ভালো আর মন্দের ফারাক বোঝানোর কাজটা মা-বাবাকেই করতে হয়। এজন্য সন্তানকে কিছু বিষয় শেখানো জরুরি। এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।

সহানুভূতি শেখান

পরীক্ষায় শীর্ষে আসার জন্য সন্তানকে মানসিক চাপে রাখেন? এই কাজটি বন্ধ করুন। পরীক্ষা নয় বরং কীভাবে জীবনে সফল হওয়া যায় সেই শিক্ষা দিন। শিশুকে সহানুভূতি আর দয়া সম্পর্কিত জ্ঞান দিন। পরিশ্রম আর দৃঢ় সংকল্প অবশ্যই সফলতার জন্য জরুরি। কিন্তু এর আগে তাকে সত্যিকারের ভালো মানুষ হতে শেখান। একজন ভালো মানুষ হতে গেলে জীবনে যে সফলতার পাশাপাশি বড় হৃদয়ও থাকা জরুরি তা তাকে জানান। 

চিন্তা করতে উৎসাহিত করুন

অভিভাবকরা সবসময়ই সন্তানদের নিয়ে উদ্বেগে থাকে। এটি মন্দ কিছু নয়। তবে তাদেরও চিন্তা করতে উৎসাহ দিন। কোনো ব্যাপারে শিশু চিন্তা করলে সমস্যা সমাধানে তার ক্ষমতা বাড়বে। এর মাধ্যমে জীবনে আসা সমস্যাগুলো সে মোকাবিলা করতে শিখবে। দ্রুত সমাধানের পথ খুঁজে পাবে। কঠিন পরিস্থিতিতে তার মনে সাহস থাকবে। 

পরিবার সম্পর্কে জানান

প্রযুক্তির ছোঁয়ায় বদলে গেছে সব। শিশুরা এখন সময় কাটায় ইউটিউব দেখে বা গেমস খেলে। আধুনিকতার স্পর্শে পরিবার থেকে দূরে সরে যাচ্ছে তারা। শিশুদের সঙ্গে সময় পেলেই গল্প করুন। পরিবারের ইতিহাস বা পূর্বপুরুষের কথা জানান। নিজের পরিবারের সবার সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকলে শিশুরা ভবিষ্যতে আত্মবিশ্বাসী হয়। পরিবারকে ঘিরে আপনার ছেলেবেলার গল্পগুলোও বলতে পারেন। এতে শিশু উৎসাহ পাবে, পারিবারিক সম্পর্ক দৃঢ় হবে। 

নিজেই হয়ে উঠুন সন্তানের রোল মডেল 

ভালো মা-বাবা তখনই হতে পারবেন যখন সন্তানের কাছে আপনার ভাবমূর্তি ভালো হবে। এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। আপনার কাছ থেকেই শিশু শিক্ষা গ্রহণ করবে। আপনার আচরণ লালন করতে চাইবে নিজের মধ্যেও। আপনি যদি অন্যদের অসম্মান করেন এবং সভ্যভাবে আচরণ না করেন তবে তারাও এই আচরণ করতে শুরু করবে। আবার আপনি যদি কাউকে সাহায্য করেন, আপনার শিশুও তা করতে শুরু করবে। তাই সন্তানের কাছে নিজেই রোল মডেল হয়ে উঠুন। 

মা-বাবা হিসেবে স্নেহ বা শাসন করা যেমন আপনার দায়িত্ব, তেমনি তাকে সঠিক শিক্ষা দেওয়ার কাজটিও আপনাকেই করতে হবে। 

আরও খবর

Sponsered content