ইসলাম ও জীবন

ভোলায় চেতনানাশক খাইয়ে তাবলিগের ১৫ মুসল্লির টাকা লুট

  জেলা প্রতিনিধি ভোলা: ৩ জুন ২০২৩ , ৪:৩১:৩০ প্রিন্ট সংস্করণ

জেলা প্রতিনিধি ভোলা: ভোলায় তাবলিগে অংশ নেওয়া ১৫ মুসল্লিকে খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক মিশিয়ে অচেতন করে টাকা- পয়সা লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (১ জুন) দিবাগত রাতে সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ফজলুর রহমান মাস্টার বাড়ি জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।  শুক্রবার (২ জুন) সকালে চেতনানাশকের প্রভাবে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ভোলা ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে দিনাজপুরের ১১ জন, ফরিদপুরের দুজন, কুমিল্লার একজন ও বগুড়ার একজন রয়েছেন। আবদুল হালিম নামে এক মুসল্লি জানান, দিনাজপুর, ফরিদপুর, কুমিল্লা ও বগুড়া থেকে ১৫ জন মুসল্লি বুধবার রাতে ভোলার একটি মসজিদে অবস্থান করেন। পরে তারা ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া গ্রামের ফয়েজুর রহমান মাস্টার বাড়ি জামে মসজিদে অবস্থান নেন। সেখানে রাতের খাবার খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। শুক্রবার ভোরে ওই মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন নামাজ পড়ার জন্য ডাকলেও গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন ছিলেন তারা। পরে একজন মুসল্লি কিছুটা সুস্থ হলে তার সহযোগিতায় সবাইকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাদের দাবি, খাবারের সঙ্গে চেতনানাশক খাইয়ে প্রায় এক লাখ টাকা নিয়ে গেছে। ভোলা ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. নিশি পাল জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আহতদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। ভোলা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, পুলিশের একটি টিম হাসপাতাল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও খবর

Sponsered content