এক্সক্লুসিভ

ভোলায় তিন প্রতিবন্ধী সন্তানকে নিয়ে জীবনযাপন করছেন মা ইয়ানুর বেগম

  প্রতিনিধি ২০ জুন ২০২৩ , ১২:০৬:০৫ প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলা প্রতিনিধি:

ভোলায় প্রতিবন্ধী তিন ছেলেকে নিয়ে মানবতার জীবনযাপন করছে একটি পরিবার। মেঘনার ভাঙনে ভিটামাটি হারিয়ে এখন নিস্ব হয়ে ভোলা ইলিশা ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বেড়ি বাঁধের কাছে অল্প একটু জমিতে বসবাস করছেন আবুল কালাম ও তার পরিবার। স্বামী আবুল কালাম নদীতে মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। তাদের চার ছেলের তিন ছেলেই প্রতিবন্ধী।

প্রথমে স্থানীয় চিকিৎসকদের কাছে নিয়ে গেলে তারা ভিটামিনের অভাব বলে ওষুধ লিখে দিয়েছেন। কিন্তু ওষুধ খাওয়ার পর তাদের কোনো পরিবর্তন হয়নি। অসহায় এ জেলে পরিবারটি ঢাকায় চিকিৎসা করাতে গিয়ে টাকার অভাবে চিকিৎসাও করাতে পারেননি। জানতে পারেননি তাদের ছেলেদের কী রোগ হয়েছে।
এই তিন ছেলে নিয়ে এখন মানবেতর জীবন যাপন করছে।

এদের মা ইয়ানুর বেগম জানান, ৮-৯ বছর আগে তার দ্বিতীয় ছেলে শাকিলের বয়স যখন আট বছর পার হয় তখন ধীরে ধীরে হাঁটাচলা বন্ধ হয়ে যায়। বসা থেকে দাঁড়াতে গেলেই পড়ে যেত। এ অবস্থায় তাকে চিকিৎসকের কাছে নিলে ভিটামিনের অভাব বলে ওষুধ লিখে দেন ডাক্তার। কিন্তু দীর্ঘদিন ওষুধ খাওয়ানোর পরও তার কোনো পরিবর্তন হয়নি।

বাবা আবু কালাম কালাম জানান, তার একটি জেলে কার্ড রয়েছে ও দুই ছেলের প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড রয়েছে। ছোট ছেলের কার্ডের বিষয়ে উপজেলার এক কর্মকর্তা এসেছেন এবং কার্ড করে দেওয়ার কথা বলেছেন। সরকারি ভাতার কার্ডে যে টাকা আসে তা দিয়ে চিকিৎসা তো দূরে থাক খাবার খরচও হয় না। তাই বড় দুইজনের চিকিৎসা গত পাঁচ বছর ধরে বন্ধ।
ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জানান, তিনি এত দিন বিষয়টি জানতেন না। আর এ বিষয়ে তাকে কেউ জানায়নি। এখন তাদের বিষয়ে তিনি খোঁজ নিচ্ছেন। তিনি পরিবারের সঙ্গে আলাপ করে যতটুকু সম্ভব পরিবারকে সার্বিক সহযোগিতা করবেন।পরিবারের দাবি প্রশাসনের পক্ষ থেকে চিকিৎসার জন্য যাতে কিছু সহযোগিতা করে।

আরও খবর

Sponsered content