সারাদেশ

ভোলার লালমোহনে ঠান্ডা জনিত রোগে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হচ্ছে শিশু

  প্রতিনিধি ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ , ৬:১০:০৫ প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলার লালমোহনে আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে শুরু হয়েছে নানা ধরনের রোগ। দিনে গরম আর রাতে ঠান্ডা এ ধরণের আবহাওয়া পরিবর্তনে ঠান্ডা জনিত রোগের কারণে ৫০ শয্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সাধারণ রোগীরদের সঙ্গে বেড়ে চলছে শিশু রোগীদের সংখ্যা।

গত এক সপ্তাহে ৫০ শয্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শুধু মাত্র শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৪০ শতাংশ। দিনের বেলায় তাপ দাহের শেষে রাতে বেলায় ঠান্ডার প্রকোপের সাথে সাথে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিশু রোগীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সর্দি, কাশি, জ্বর, নিউমোনিয়া-সহ ঠান্ডাজনিত নানান ধরনের রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে শিশুরা।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা উপজেলার রহিমা বেগম জানান, তাঁর এক বছর বয়সী মেয়ে খাদিজা ঠান্ডাজনিত সমস্যায় গত তিন দিন ধরে পল্লী চিকিৎসকের দোকান থেকে ওষুধ কিনে খাইয়েছি। কিন্তু এতে খুব বেশি উপকার হয়নি। যে কারণে মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এ বিষয়ে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মোঃ মহসিন খান বলেন, হঠাৎ আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়ার ফলে হাসপাতালে ঠান্ডাজনিত শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। মূলত বিগত সপ্তাহখানেক ধরে হাসপাতালে শিশু রোগীদের সংখ্যা অনেকাংশ বেড়েছে। শিশুদের ক্ষেত্রে নিউমোনিয়া প্রকোপ তেমন একটা না থাকলেও শ্বাসকষ্ট, সর্দি, কাশিতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে তাঁরা। তিনি অভিভাবকদের শিশুদের প্রতি যত্নবান হওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।

তিনি আরো বলেন, ঠান্ডা বাতাস ফুসফুসে গেলে শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া-সহ বিভিন্ন ঠান্ডাজনিত রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। বিশেষ করে ছোট বাচ্চারা ঠান্ডাজনিত রোগে বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে। এ ক্ষেত্রে শিশুদের পরিবারের সদস্যদের সতর্ক থাকতে হবে।

আরও খবর

Sponsered content