আওয়ামীলীগ

ভোলা-২ আসনের এমপি আলী আজম মুকুলকে হত্যার হুমকি

  ভোলা প্রতিনিধি: ৬ জুন ২০২৩ , ১১:৫৩:৪৬ প্রিন্ট সংস্করণ

ভোলা প্রতিনিধি: ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুলকে (এমপি) প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। বোরহানউদ্দিন উপজেলার পক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি (বহিষ্কৃত) আলাউদ্দিন সর্দার ভার্চ্যুয়ালি এক ভিডিও কলে গত শনিবার (৩ জুন) এ হুমকি দেন। হুমকির ৩১ সেকেন্ডের ওই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এতে আলাউদ্দিন সর্দারকে বলতে শোনা যায়,‘ইনশাআল্লাহ আমি দাঁড়াব, এরপর যদি এমপি আলী আজম মুকুল কিছু করে। তাহলে আমি আপনাকে বলে রাখি, প্রকাশ্যে আমিই এমপি আলী আজমকে মেরে ফেলবো। আমি একাই তাকে মেরে ফেলবো, কাউকে লাগবে না। এসময় এমপিকে তুইতোকারি করেও উত্তেজিত কণ্ঠে তাকে আক্ষেপ করতে দেখা গেছে। এতে এমপির নির্বাচনী এলাকা বোরহানউদ্দিন ও দৌলতখান এলাকায় নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এমপিকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে আজ সোমবার (৫ জুন) সকালে বোরহানউদ্দিন ও দৌলতখান উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। উপজেলা আওয়ামী লীগ এ আয়োজন করে। বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভায় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা শেষে দলীয় নেতা-কর্মীরা পক্ষিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগ নেতা আলাউদ্দিন সর্দারের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। এমপিকে হুমকির বিষয়ে জানতে, অভিযুক্ত আলাউদ্দিন সর্দারের মোবাইল ফোনে কল করা হলে তাঁর জামাতা পরিচয়ে মো. লোকমান নামে এক ব্যক্তি জানান, তিনি বর্তমানে ভোলায় নেই। তিনি আত্মগোপনে আছেন। বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনির হোসেন মিঞা বলেন, এমপিকে হত্যার হুমকি, এলাকায় উত্তেজনা ছড়ানো ও দাঙ্গা সংঘটিত করার অভিযোগে বোরহানউদ্দিন উপজেলার পক্ষিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন সর্দারের বিরুদ্ধে বোরহানউদ্দিন থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বোরহানউদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি হাসান আল বলকেয়া বাদী হয়ে আজ সোমবার থানায় এ মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে এলাকায় পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ২০২১ সালে ইউপি নির্বাচনে বোরহানউদ্দিন উপজেলার পক্ষিয়া ইউপিতে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নাগর হাওলাদারকে পরাজিত করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলাউদ্দিন সর্দার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এর পর থেকে ভোলা-২ আসনের এমপি আলী আজম মুকুলের সঙ্গে তাঁর বিরোধ চলে।

আরও খবর

Sponsered content